Blog

A remarkable increase in Australian citizenship approvals this year

FREE ASSESSMENT FOR AUSTRALIA IMMIGRATION

 

সংক্ষিপ্ত মন্দাবস্থার পর অস্ট্রেলিয়ার নাগরিকত্ব অনুমোদনটি লক্ষ্যে পৌঁছাতে গতি বৃদ্ধি করেছে।

অভিবাসন মন্ত্রী David Coleman বলেন যে ২০১৮-১৯ এর প্রথম ৫ মাসে ৫০,০০০ এরও বেশি আবেদনকারীকে অনুমোদন দেয়া হয়েছে। এটা গত অর্থবছরের একই সময়ে অনুমোদিত আবেদনকারীদের চেয়ে সংখ্যায় দ্বিগুণ।

গত বছর নাগরিকত্বের জন্য শুধুমাত্র ৮০,৫৬২ সংখ্যক আবেদনকারীকে অনুমোদন করেছিল অস্ট্রেলিয়ার সরকার। এই সংখ্যাটি ২০০২-০৩ এর পর সর্বনিম্ন সংখ্যা, সে সময়ে ৭৯,০০০ সংখ্যক অস্ট্রেলিয়ায় নাগরিকত্ব অনুমোদন করা হয়েছিল।

Mr. Coleman আশা করেন যে আগামি ২ মাসে নাগরিকত্বের সংখ্যা ২০,০০০ এ বৃদ্ধি পাবে। ২০১৮ এর জুলাই থেকে নভেম্বরে ৫৮,০০০ সংখ্যক নাগরিকত্ব আবেদন প্রক্রিয়াকরণ করা হয়েছে।

গত বছর নাগরিকত্ব অনুমোদনে অপেক্ষমান সময়ের বৃদ্ধির জন্য Dept. of Home Affairs সমালোচনার মুখোমুখি হয়েছিল। ২০১৭-১৮ এর শেষের দিক পর্যন্ত প্রায় ২৪৫,০০০ সংখ্যক নাগরিকত্ব আবেদন pending ছিল। বর্তমানে অস্ট্রেলিয়ার নাগরিকত্ব অনুমোদনের অপেক্ষা করার সময়কাল ১৯-২২ মাস।

Dept. of Home Affairs অনুসারে, জাতীয় নিরাপত্তার ব্যপারে উদ্বিগ্ন হবার কারণে অপেক্ষমান সময় বৃদ্ধি পেয়েছে। জটিল কিছু বিষয় বৃদ্ধি পাবার কারণে প্রক্রিয়াকরণ সময়ও বেড়েছে।

Mr. Coleman বলেছেন নাগরিকত্ব আবেদন প্রক্রিয়াকরণ করতে আরো resource পরিচালনা করছে বিভাগটি। তিনি আরো বলেন যে জটিল বিষয় গুলোর ব্যবস্থা করতে একটি special task force তৈরি করা হয়েছে। অতিরিক্ত স্টাফ নিয়োগ এবং প্রশিক্ষণ দেয়া হয়েছে যেখানে সরকারের $৯ মিলিয়ন খরচ হয়েছে, SBS News বলেছে। দক্ষতার সাথে আবেদনগুলোর কাজ সম্পন্ন করা হচ্ছে তা নিশ্চিত করতে সরকার এ সকল পদক্ষেপ নিয়েছে।

Lindt Café siege এর পর অস্ট্রেলিয়া অতিরিক্ত integrity measure নিয়েছে। অস্ট্রেলিয়ার নাগরকিত্ব আবেদনকারির পরিচয়পত্র এবং চরিত্র যাচাই করার জন্য এটা করা হয়েছে।

Mr. Coleman বলেন যে ২০১৫ তে প্রক্রিয়াগুলোর প্রণয়ণের বিপরীতে নাগরিকত্ব আবেদনসমূহ প্রক্রিয়াকরণ চলতে থাকবে। তিনি আরো বলেন অস্ট্রেলিয়ার নাগরিকত্ব একটি সুবিধাজনক বিষয় এবং শুধুমাত্র তাদেরকেই দেয়া হবে যারা অস্ট্রেলিয়ার আইন কে সম্মান করবে এবং এর মূল্যবোধকে সমর্থন করবে।

যারা General skilled migration – Subclass 189 /190/489 এর মধ্যে অস্ট্রেলিয়া যেতে চান, তাদের জন্য GIC বিভিন্ন রকম ভিসা সেবা ও সুবিধা প্রদান করে থাকে। GIC সেবার মধ্যে consultant এবং প্রক্রিয়াকরণ অন্তর্ভুক্ত যার মাধ্যমে আবেদনকারীরা তাদের প্রয়োজনীয় সুবিধা পাবে। আমাদের রয়েছে Registered Lawyer যাদের মাধ্যমে আমরা আপনাকে আপনার নির্ধারিত গন্তব্যস্থলে পৌঁছানো পর্যন্ত সকল ধরণের সহযোগিতা প্রদানের নিশ্চয়তা দিয়ে থাকি। আরো বিস্তারিত জানতে আমাদের Counselor দের সাথে কথা বলুন।

 

আপনার অস্ট্রেলিয়া ইমিগ্রেশনের সুযোগগুলো জানার জন্য আজই রেজিস্ট্রেশন করুন

No Comments
Post a comment